হিন্দুরা ঘুমিয়ে পড়েছে, তাই তারা কষ্টের মুখোমুখি হচ্ছে: আরএসএস প্রধান মোহন ভাগবত

mohan bhagwat

ডেস্ক: রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘের (আরএসএস) প্রধান সরসঙ্ঘ চালক মোহন ভাগবত বলেছেন, হিন্দু এখনও ঘুমিয়ে আছেন। এজন্য তাকে খারাপ সময়ে মুখোমুখি হতে হয়েছে। যেদিন সে জেগে উঠবে, সে তার সাথে পুরো বিশ্বকে উজ্জ্বল করবে।

ভাগবত বললেন আগে যখন বিদেশ থেকে আক্রমণকারীরা ভারতে আসতেন এবং লুট করে চলে যেতেন, কিন্তু মুসলিম আক্রমণকারীরা এখানে এলে তারা দেশকে লুট করে এখানে বসতি স্থাপন করত।
এখন আর কোনও বিদেশী হানাদার ভারতে আসতে যাচ্ছে না।

তিনি বলেছিলেন যে আওরঙ্গজেব দেশের মুসলমানদের মধ্যে বিচ্ছিন্নতাবাদ তৈরি করেছিলেন। এর পরে ব্রিটিশরাও একই পদ্ধতি গ্রহণ করেছিল। আজ দেশে বিদেশি নেই এবং এখানে বাস করা সমস্ত মানুষ আমাদের পূর্বপুরুষের বংশধর।

গান্ধীজি বলেছিলেন যে হিন্দুত্ববাদ সত্যের অবিচ্ছিন্ন গবেষণার নাম, হিন্দু সমাজ ক্লান্ত, নিদ্রিত, তবে যখন জেগে উঠবে, তখন এটি আগের চেয়ে আরও বেশি শক্তি গ্রহণ করবে এবং পুরো বিশ্বকে আলোকিত করবে।

তিনি বললেন যে আমাদের ধর্মে প্রত্যেকে সম্মান পায়। এখানে 40-45 টি দেশের লোকেরা 4-5 বছর পরে ভারতে আসে।

মোহন ভাগবত রবিবার দিল্লিতে একটি বইয়ের মুক্তির অনুষ্ঠানে ভাষণ দিচ্ছিলেন।
তিনি বলেন, আমাদের কৃষককে তার নিজস্ব ভিত্তিতে চাষাবাদ করা উচিত। আমাদের কৃষকদের প্রতিভা এবং পূর্বপুরুষদের জ্ঞান আছে। যদি আমরা একটি স্বনির্ভর ভারত গড়তে চাই, তবে আমাদের দেশকে আমাদের আত্মায় দেখতে হবে।

স্যার সংঘচলক বলেছেন যে আজ আমরা আমাদের ভাষা ও যুক্তি দিয়ে ভাবতেও পারি না। এখন আমাদের ভারতকে ‘ভারত’ দৃষ্টিকোণ থেকে বুঝতে হবে। পূর্বের লোকেরা বলতেন যে এত রাজা হওয়ার পরেও একটি জাতি কীভাবে একটি জাতি হয়ে উঠতে পারে তবে তা হয়ে ওঠে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here